খাবার পৌঁছাতে দেরি হওয়ায় ডেলিভারি বয়কে থাপ্পড় মহিলার! ভেঙে দেওয়া হয় মোবাইলও

Home রাজ্য খাবার পৌঁছাতে দেরি হওয়ায় ডেলিভারি বয়কে থাপ্পড় মহিলার! ভেঙে দেওয়া হয় মোবাইলও
খাবার পৌঁছাতে দেরি হওয়ায় ডেলিভারি বয়কে থাপ্পড় মহিলার! ভেঙে দেওয়া হয় মোবাইলও

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: অসময়ে, দরকারে বাড়ির দোরগোড়ায় খাবার পৌঁছে দেন যাঁরা, সেই ফুড ডেলিভারি বয়দেরই বারবার হেনস্থা হতে হয় গ্রাহকদের হাতে। আবারও প্রকাশ্যে এলো তেমনই একটি ঘটনা। খাবার পৌঁছে দিতে সামান্য দেরি হওয়ায় ডেলিভারি বয়কে থাপ্পড় মেরে তাঁর মোবাইল ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সোদপুরের এক মহিলার বিরুদ্ধে।

নিগৃহীত ডেলিভারি বয়ের নাম উজ্জ্বল দাস। উজ্জ্বল জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সোদপুরের কালীতলা মাঠ এলাকার একটি জায়গা থেকে খাবারের অর্ডার আসে। অন্যান্য ডেলিভারি সেরে ঐ লোকেশানে সাইকেলে করে খাবার নিয়ে পৌঁছাতে সামান্য দেরি হয়ে উজ্জ্বলের। এতেই মহিলা প্রথমে ফোন করে তাঁকে গালিগালাজ করেন বলে জানিয়েছেন উজ্জ্বল। এখানেই শেষ নয়, খাবার নিয়ে নির্দিষ্ট লোকেশনে পৌঁছানোর পর ওই মহিলা উজ্জ্বলকে আরও ৫০০ মিটার দূরে পানশিলা আনন্দপল্লীর অন্য একটি লোকেশনে যাওয়ার নির্দেশ দেন।

প্রাথমিকভাবে অন্য লোকেশনে খাবার ডেলিভারি করতে উজ্জ্বল অস্বীকার করলেও পরে তিনি সম্মত হন। সেখানে পৌঁছে খাবার ডেলিভারি করার পরেই ওই মহিলা তাঁর উপর চড়াও হন বলে অভিযোগ। গালিগালাজ করার পাশাপাশি উজ্জ্বলকে থাপ্পড় মেরে হাত থেকে মোবাইল ফোন কেড়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেছেন ওই ডেলিভারি বয়। এমনকী, তাঁর সাইকেলটিরও ক্ষতি করা হয়েছে বলে দাবি উজ্জ্বলের।

উজ্জ্বল জানিয়েছিলেন, মোবাইল ফোনটি তিনি কিস্তিতে কিনেছিলেন। মারধরের পাশাপাশি তাঁকে হুমকিও দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তাঁর।এরপরেই সহকর্মীদের সম্পূর্ণ ঘটনার ব্যাপারে জানান উজ্জ্বল। মঙ্গলবার রাতেই সোদপুর জোনের সমস্ত জোম্যাটো ডেলিভারি বয়রা একসঙ্গে গিয়ে ঘোলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। উজ্জ্বল জানান, যে অ্যাকাউন্ট থেকে খাবার অর্ডার করা হয়েছিল সেটি ভুয়ো ছিল। ঘটনা বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে ঘোলা থানার পুলিস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.