‘নিজের ১২০ শতাংশ দিয়েছিলাম,তাই দলের প্রতি অসৎ হতে পারবনা’! টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়লেন কোহলি

Home খেলাধুলো ‘নিজের ১২০ শতাংশ দিয়েছিলাম,তাই দলের প্রতি অসৎ হতে পারবনা’! টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়লেন কোহলি
‘নিজের ১২০ শতাংশ দিয়েছিলাম,তাই দলের প্রতি অসৎ হতে পারবনা’! টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়লেন কোহলি

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: টেস্ট ক্রিকেটেও দলের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন  বিরাট কোহলি।শনিবার ট্যুইট করে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিলেন তিনি। বিসিসিআইয়ের সঙ্গে বিবাদ এবং দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে হারের পরই এতবড় একটা সিদ্ধান্ত নিলেন বিরাট।

টি-২০ বিশ্বকাপের আগেই ক্রিকেটের সীমিত ওভারের ফরম্যাট থেকে অধিনায়কত্ব ছাড়েন বিরাট। তবে সেসময় ওয়ানডে এবং টেস্টে অধিনায়ক হিসাবে থেকে যাওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন তিনি। কিন্তু বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর ওয়ানডে অধিনায়কের পদ থেকেও তাঁকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই। যা নিয়ে বোর্ড এবং কোহলির মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রকাশ্য চলে আসে। তাই ওয়ানডে অধিনায়কের পদ থেকে তাঁকে সরিয়ে রোহিতকে দুই ফরম্যাটেই ক্যাপ্টেন করা হয়।

নিজের পোস্টে কোহলির অভিমান স্পষ্ট ধরা পড়েছে। তিনি লিখেছেন, ‘গত সাত বছর ধরে প্রতিদিন কঠোর পরিশ্রম, ধৈর্য সহকারে দলকে সঠিক দিশায় এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছি। সম্পূর্ণ সততার সঙ্গে এই কাজ করেছি এবং কিছু বাদ রাখিনি। কোনও একটা পর্যায়ে এসে সবকিছুই থেমে যায় যেমন টেস্ট দলের অধিনায়ক হিসেবে, আমার কাছেও এটা থেমে যাওয়ার সময়।’

কোহলির সংযোজন, ‘এই যাত্রাপথে অনেক উত্থান এবং কিছু পতন হয়েছে। কিন্তু কখনওই চেষ্টা বা বিশ্বাসের খামতি থাকেনি। বরাবর নিজের ১২০ শতাংশ দেওয়ার চেষ্টা করেছি। যদি সেটা না পারি, তা হলে আমি জানি এটা সঠিক কাজ নয়। দলের প্রতি অসৎ হতে পারব না।’

কোহলির আলাদা করে ‘রবিভাই’ অর্থাৎ ভারতের প্রাক্তন কোচ রবি শাস্ত্রীর কথা উল্লেখ করেছেন।ধন্যবাদ জানিয়েছেন দলের সাপোর্ট স্টাফদেরও। তবে কোহলি সবচেযে বেশি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মহেন্দের স্ং ধোনির প্রতি। পূর্বসূরির উদ্দেশে তাঁর বক্তব্য, ‘এমএস ধোনিকে সব থেকে বেশি ধন্যবাদ আমাকে অধিনায়ক হিসেবে যোগ্য মনে করার জন্য। ভারতীয় ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি, এই বিশ্বাস ধোনির ছিল।’

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রথম বার টেস্ট দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছিলেন কোহলি। প্রথম টেস্টে ধোনির চোট থাকায় কোহলী অধিনায়কের দায়িত্ব সামলান। সেই সিরিজেরই তৃতীয় টেস্টে অবসর ঘোষণা করেন ধোনি। ফলে শেষ টেস্টেও কোহলীকে নেতৃত্ব দিতে দেখা যায়। তারপর থেকেই তিনি একটানা সাত বছর ভারতের টেস্ট দলের অধিনায়কের দায়িত্ব সামলেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.