অধ্যাপকদের অবসরের বয়স নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তোপ দাগলেন তরুণজ্যোতি

Home রাজ্য অধ্যাপকদের অবসরের বয়স নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তোপ দাগলেন তরুণজ্যোতি
অধ্যাপকদের অবসরের বয়স নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তোপ দাগলেন তরুণজ্যোতি

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: কয়েকদিন আগেই জানা গিয়েছিল, কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের চাকরির মেয়াদ আবারও বাড়তে চলেছে। ৬৫ বছর থেকে ৬৮ বছর হতে চলেছে অধ্যাপকদের অবসরের বয়স। আগামী বছর ৩ জানুয়ারি নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড বিতরণী অনুষ্ঠানে এই ঘোষণা করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী, এমনটাই খবর সংবাদমাধ্যম সূত্রে।

অধ্যাপকদের অবসরের বয়স বৃদ্ধির খবরে শোরগোল পড়েছে শিক্ষামহলে। অনেকেই মনে করছেন, অধ্যাপকদের চাকরির মেয়াদ বৃদ্ধি হওয়াতে সংকুচিত হবে নতুন অধ্যাপক নিয়োগের প্রক্রিয়া, ফলে চাকরির সুযোগ হারাবেন শিক্ষিত যুবক-যুবতীরা। যদিও রাজ্য সরকারের মতে, দক্ষ শিক্ষা প্রশাসকদের ধরে রাখার জন্যই এই উদ্যোগ নেওয়া প্রয়োজনীয়। বর্তমানে অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বয়সই ৬৫ বছরের ঊর্ধ্বে। এদিকে তাঁরা গুরুত্বপূর্ণ কিছু পদের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন। ফলে এই সিদ্ধান্ত সময়োপযোগী ও প্রয়োজনীয়, এমনটাই বলা হচ্ছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে।

যদিও রাজ্য সরকারের তরফ থেকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে, এমনটা প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই বিরোধীরা প্রবল আক্রমণ শাণাচ্ছেন রাজ্য সরকারের দিকে। দীর্ঘদিন ধরেই রাজ্যে কোনও চাকরির পরীক্ষা হচ্ছে না, স্কুল-কলেজে শিক্ষক নিয়োগ হচ্ছে না ইত্যাদি একাধিক দাবিতে সরব হয়েছেন তাঁরা। সম্প্রতি অধ্যাপকদের চাকরির মেয়াদ বৃদ্ধির খবর প্রকাশ্যে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন বিজেপির যুবনেতা তরুণজ্যোতি তিওয়ারি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লিখেছেন-‘৬৮ কেন? আজীবন করে দিলেই পারে। বেশ কিছু বছর নতুন নিয়োগের দরকারই পড়বে না। অধ্যাপকদের তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ মঞ্চে দেখেছি, এবার না হয় পতাকা বাঁধতে দেখব।’ সব মিলিয়ে, অধ্যাপকদের বয়স বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে তরজা থামছেই না শাসক-বিরোধী শিবিরের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.