Russia-Ukraine war: আমরা পেরেছি! রুশ সেনা ট্যাঙ্ক দখলের পর উল্লাস ইউক্রেনের

Home Uncategorized Russia-Ukraine war: আমরা পেরেছি! রুশ সেনা ট্যাঙ্ক দখলের পর উল্লাস ইউক্রেনের
Russia-Ukraine war: আমরা পেরেছি! রুশ সেনা ট্যাঙ্ক দখলের পর উল্লাস ইউক্রেনের

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে রুশ হামলা জারি রয়েছে। রাশিয়া – ইউক্রেন যুদ্ধ (Russia-Ukraine war) তুঙ্গে। মারিউপোলের কাছেও প্রবল যুদ্ধ চলছে। রাশিয়ান সামরিক বাহিনী মনে করে এই এলাকা খেরসন নিয়ন্ত্রণ করে। স্থানীয় ইউক্রেনীয় প্রশাসনিক কর্তারাও নিশ্চিত করেছেন যে রাশিয়ান বাহিনী ২.৮ লক্ষ মানুষের বসবাস থাকা ব্ল্যাক সি পোর্টের স্থানীয় সরকারি সদর দফতরগুলির দখল নিয়েছে। যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এটিই ইউক্রেনের প্রথম প্রধান শহরের পতন হল। ইউক্রেন জানিয়েছে কিয়েভে প্রায় ত্রিশ লক্ষ সাধারণ নাগরিক আটকে রয়েছেন। সেই সঙ্গে তারা জানিয়েছে রুশ বাহিনী নির্বিচারে সাধারণ মানুষের ওপরেও হামলা জারি রেখেছে। তারই মাঝে রয়েছে ইউক্রেনীয় (Ukrainian) বাহিনীর প্রতিরোধ। সম্প্রতি একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা গেছে, প্রচন্ড ঠান্ডায় রুশ ট্যাঙ্কার (Russian tank) দখল করেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। তা দখল করে রীতিমত উৎসাহের মেজাজ ধরা পড়েছে তাদের মধ্যে। ট্যাঙ্কারের ওপর উঠে উল্লাস করতে দেখা গেছে ইউক্রেনীয় সেনাদের।

রুশ গোলাবর্ষণে ইউরোপের বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আগুন। দক্ষিণ ইউক্রেনের শহর এনেরহোদারের বিদ্যুৎ কেন্দ্রে হামলা চালায় রুশ বাহিনী। গোলাবর্ষণের পরেই ওই পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রটিতে আগুন ধরে যায়। ইউক্রেনের জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, রাশিয়ান সেনাবাহিনী চারদিক থেকে গোলাবর্ষণ করছে। ইউক্রেনের বিদেশমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা শুক্রবার টুইটে জানিয়েছেন, স্থানীয় মেয়র ওই এলাকায় রুশ হামলার কথা জানিয়েছেন।

এদিকে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ (Russia Ukraine war) থামাতে আলোচনাও চলছে। রাশিয়ানদের (Russian force) সঙ্গে কথা বলার জন্য ইউক্রেনের প্রতিনিধি দলের একজন সদস্য জানিয়েছেন, উভয় পক্ষই সাধারণ নাগরিকদের নিরাপদে যুদ্ধ এলাকাগুলি ছেড়ে যাওয়ার জন্য সেভ প্যাসেজ দিতে সম্মত হয়েছে। যে এলাকাগুলি দিয়ে সাধারণ মানুষজন যাবেন সেখানে উভয়পক্ষই যুদ্ধবিরতি পালন করবে বলে জানিয়েছেন জেলেনস্কির উপদেষ্টা মাইখাইলো পোডোলিয়াক।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ (russia-ukraine war) আরও জোরদার করেছে পুতিন-ফৌজ। রুশ বাহিনীর একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্রে তছনছ হয়ে যাচ্ছে ইউক্রেনের বিস্তীর্ণ প্রান্ত। রুশ আগ্রাসন রাজধানী কিয়েভেও। এতদিন কিয়েভকেই নিরাপদ আশ্রয় বলে মনে করে বাস করছিলেন বহু ভারতীয়। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে আর কিয়েভে আটকে থাকা আর কোনমতেই নিরাপদ নয়। যেভাবেই হোক এবার সেদেশ থেকে নাগরিকদের ফেরাতে তৎপরতায় কোনও ত্রুটি রাখছে না দিল্লি। তাই ভারতীয়দেরও সেদেশ থেকে বেরোতে সবরকমভাবে চেষ্টা করার আবেদন দূতাবাসের। এর মাঝেই ভাইরাল হয়েছে ইউক্রেনীয় (Ukrainian) বাহিনীর এই উল্লাসের ভিডিও। ইউক্রেনের (Ukraine) প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করেছে তারা যে রাশিয়ার ১৪ টি বিমান, ৮টি হেলিকপ্টার, ১০২টি ট্যাঙ্কার ৫৩৬টি সশস্ত্র যান, ১৫টির বেশি ভারী মেশিনগান দখল করেছে।

কথায় আছে ‘দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে, সব কিছুই সম্ভব’। সাধারণ ইউক্রেনবাসীর অবস্থাও অনেকটা সেইরকমই। রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধে (russia-ukraine war) রুশ আক্রমণের মুখে মাতৃভূমিকে অক্ষত রাখতে অস্ত্র হাতে তুলে নিতেও দ্বিধা করেননি ইউক্রেনিয়রা। কেউ হাতে তুলে নিয়েছেন মারাত্মক কালাশনিকভ কেউ বা মলোটভ ককটেল হাতেই রুশ বাহিনীকে রুখে দেওয়ার চেষ্টা করছেন। নায়কের মতো সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জ়েলেনস্কি। মূলত তাঁর আবেদনে সাড়া দিয়েই রাশিয়ান বাহিনীর বিরুদ্ধে পথে নেমেছেন সাধারণ ইউক্রেনবাসী।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন এক ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে, যা দেখে চমকে উঠেছেন অনেকে। ভিডিয়োতে একব্যক্তিকে রাশিয়ান ট্যাঙ্কের সামনে দেখা গিয়েছে। অকুতোভয় ওই ব্যক্তি খালি হাতে রাশিয়ান ট্যাঙ্কের সামনে দাঁড়িয়ে তাঁকে রুখে দেওয়ার চেষ্টা করছেন। উত্তর ইউক্রেনের বাখমাচে ঘটনাটি ঘটেছে। আজ ইউক্রেনের বিদেশমন্ত্রক ভিডিয়োটি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছে। চলমান রাশিয়ান ট্যাঙ্ককে নিজের সর্বশক্তি দিয়ে ঠেলে পিছনে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন ওই ব্যক্তি। বাস্তবিক অর্থ এটা অসম্ভব হলেও ওই ব্যক্তির প্রতিরোধের মুখে পড়ে ট্যাঙ্কটি গতি কমাতে বাধ্য হয়েছে। আশেপাশে বাসিন্দাদের ওই প্রাণে বাঁচাতে ওই ব্যক্তির দিকে ছুটে আসতে দেখা গিয়েছে

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ (Russia – Ukraine war) শুরু হওয়ার পর থেকেই ইন্টারনেটে নানা ধরনের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে৷ তার মধ্যে যেমন বেশ কিছু ভিডিও রয়েছে, যেগুলিতে রাশিয়ার হামলার সামনে ইউক্রেনের অসহায়তা ফুটে উঠেছে৷ আবার কিছু ভিডিওতে রাশিয়ার আগ্রাসনের সামনেও ইউক্রেনবাসী যে মাথা নত করছেন না, তার প্রমাণ মিলেছে৷

এসবের মধ্যেই একদম অন্য ধরনের একটি ভিডিও দেখে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের (Russia-ukraine war) ভয়াবহতার মধ্যেও আনন্দ পাচ্ছেন নেটিজেনরা৷ যে ভিডিও-তে দেখা গিয়েছে, রাশিয়ার একটি ট্যাঙ্ক চুরি করে নিয়ে যাচ্ছেন ইউক্রেনের একজন কৃষক। নিজের ট্র্যাক্টরের সাহায্যে রুশ ট্যাঙ্কটিকে টেনে নিয়ে চলে যান তিনি৷

ইউক্রেনের কূটনীতিক ওলেক্সান্ডার শেরভাও এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন৷ তিনি ২০১৪ থেকে ২০২১ পর্যন্ত অস্ট্রিয়ায় ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ছিলেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘এটা যদি সত্যি হয়, তাহলে সম্ভবত প্রথমবার কোনও কৃষক ট্যাঙ্ক চুরি করলেন৷ ইউক্রেনীয়রা সত্যিই কড়া ধাঁচের৷ ‘

এক টুইটার ব্যবহারকারী অবশ্য লিখেছেন, ‘এই ঘটনার মধ্যে এতটুকুও মজা খোঁজা উচিত নয়৷ কিন্তু এই ইউক্রেনীয়রা কতটা সাহসী হতে পারে সেটা ভেবেই আমি হাসছি!’ তাই তাঁদের গলায় উচ্চারিত হতে পারে, আমরা পেরেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.