Byomkesh Bakshi: ‘বিশুপাল বধ’ নিয়ে বড় পর্দায় ফিরছে ব্যোমকেশ বক্সী, অজিতের চরিত্রে নতুন মুখ!

Home জলসাঘর Byomkesh Bakshi: ‘বিশুপাল বধ’ নিয়ে বড় পর্দায় ফিরছে ব্যোমকেশ বক্সী, অজিতের চরিত্রে নতুন মুখ!
Byomkesh Bakshi: ‘বিশুপাল বধ’ নিয়ে বড় পর্দায় ফিরছে ব্যোমকেশ বক্সী, অজিতের চরিত্রে নতুন মুখ!

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: বাঙালির কাছে গোয়েন্দা মানেই ফেলুদা আর ব্যোমকেশ। এই দুই চরিত্রই যতটা সফল বাংলা সাহিত্য ভাণ্ডারে ঠিক ততটাই রুপোলি পর্দায়। ঠিক সেই কারণেই ফের বড় পর্দায় আসতে চলেছে ব্যোমকেশ বক্সী (Byomkesh Bakshi)। শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের অসম্পূর্ণ কাহিনী ‘বিশুপাল বধ’ অবলম্বনে অরিন্দম শীলের পরিচালনায় মুক্তি পেতে চলেছে এই ছবি। ছবির সংলাপ লিখেছেন পদ্মনাভ দাশগুপ্ত। ব্যোমকেশের এই নতুন সাসপেন্স থ্রিলারের জন্য হাত মিলিয়েছে এসভিএফ ও ক্যামেলিয়া প্রোডাকশনস। যদিও এখনও এই ছবির নাম ঠিক হয়নি।

ব্যোমকেশের ভূমিকায় আবির চট্টোপাধ্যায়

এই ছবিতে ফের ব্যোমকেশের ভূমিকায় অভিনয় করবেন আবির চট্টোপাধ্যায় (Abir Chatterjee) এবং বরাবরের মতো তাঁর স্ত্রী সত্যবতীর ভূমিকায় রয়েছেন সোহিনী সরকার (Sohini sarkar)।

সত্যবতীর ভূমিকায় সোহিনী সরকার

তবে এখানেই তো আর শেষ নয়, ব্যোমকেশের লেখক বন্ধু অজিত যদি না থাকে তাহলে কি আর এই বৃত্ত সম্পূর্ণ হয়? বন্ধু অজিতের ভূমিকায় এই প্রথমবার দেখা যাবে ওটিটি প্ল্যাটফর্মের পরিচিত মুখ সুহত্র মুখোপাধ্যায়কে। ‘দ্য একেন’ (The Eken) এর পর এই ছবিতে অভিনয় সুহত্রর দ্বিতীয় বড়পর্দায় কাজ।

অজিতের ভূমিকায় সুহত্র মুখোপাধ্যায়

নতুন এই ছবির মাধ্যমে, ১৯৭১ সালের বাংলার রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক পরিস্থিতি ফুটে উঠবে, যেখানে ব্যোমকেশ খুনের রহস্য উন্মোচন করবেন। সেই সময়ের বাংলায় উত্তাল নকশাল বিদ্রোহের প্রেক্ষাপটে তৈরি হবে সেট। একটি থিয়েটারে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ব্যোমকেশ বক্সী। প্রতিশোধের এক ঘটনায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। মঞ্চের একেবারে মাঝখানে ঘটে যাওয়া এক অপরাধের সাক্ষী হন স্বয়ং সত্যান্বেষী।ব্যোমকেশ বক্সী যখন কেসটির গভীরে পৌঁছাতে চেষ্টা করছেন, ধীরে ধীরে সামনে আসে আরও সত্যি। যার সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে প্রেম, বিশ্বাসঘাতকতা।


এই নিয়ে চতুর্থবার ব্যোমকেশ পরিচালনা করতে চলেছেন অরিন্দম শীল। এর আগে মুক্তি প্রাপ্ত ‘হর হর ব্যোমকেশ’, ‘ব্যোমকেশ পর্ব’ এবং ‘ব্যোমকেশ গোত্র’-এর মতো ব্যোমকেশের সব কটি ছবি দর্শকেরা পছন্দ করেছেন। পরিচালক বলেন, ‘আমি এখনও পর্যন্ত যতগুলো ছবি করেছি, তার মধ্যে ব্যোমকেশ সিরিজ সব সময়ই আমার মনের খুব কাছের এবং এসভিএফ (SVF) এর মতো বড় সংস্থা আমার ব্যোমকেশের ছবিগুলিকে বড় আকারে তৈরি করার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। তাদের সহযোগিতা ছাড়া আগের সমস্ত ব্যোমকেশ এতটা সুন্দরভাবে তৈরি করা সম্ভব হত না। তাদের সঙ্গে ক্যামেলিয়া প্রোডাকশনের যৌথ উদ্যোগ, একটি অনন্য ছবি তৈরি করতে চলেছে।’
সঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘চতুর্থবার ব্যোমকেশ ছবিটি পরিচালনা করব, তাই আমি অত্যন্ত আনন্দিত। এটি একটি অসম্পূর্ণ গল্পের উপর ভিত্তি করে তৈরি। গল্পটি সম্পূর্ণ করা পদ্মনাভ এবং আমার জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল। আমার আগের ব্যোমকেশ ছবিগুলির জন্য যে পরিমাণ ভালোবাসা পেয়েছি দর্শকদের থেকে, এবারও ততটা ভালোবাসা সকলে দেবেন বলে আমি আশা করছি। সব দিক ঠিক থাকলে আগামী মে মাস থেকেই শুরু হবে এই ছবির শুটিং’।

Leave a Reply

Your email address will not be published.