বিহার পেল সুঁচবিহীন কোভিড ভ্যাকসিনের ১৫ লক্ষ ডোজ

Home দেশের মাটি বিহার পেল সুঁচবিহীন কোভিড ভ্যাকসিনের ১৫ লক্ষ ডোজ
বিহার পেল সুঁচবিহীন কোভিড ভ্যাকসিনের ১৫ লক্ষ ডোজ

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: ভ্যাকসিন মানেই সুঁচের আতঙ্ক। এবার এই আতঙ্ক থেকে মুক্ত হতে পারল বিহার। কারণ বিহার পেল সুচবিহীন ভ্যাকসিনের ১৫ লক্ষ ডোজ। জাইকভ ডি ভ্যাকসিন নিয়ে নানা মহলে কৌতূহল ছিল। এবার এই ভ্যাকসিন পা রাখল বিহারে। জানুই, ভাগলপুর, মধুবনিতে আপাতত এই টিকা মিলছে।ভারত সরকারের কাছে তাদের তৈরি সূচ বিহীন কোভিড রোধক ভ্যাকসিন সরবরাহ শুরু করেছে জাইডাস ক্যাডিলা। বিহারের পাটনায় শুরু হল এই টিকা দেওয়ার কাজ। ভারতে এই প্রথম। যারা সূচের মাধ্যমে টিকা নিতে ভয় পান তাদের জন্য এই টিকা একেবারে আদর্শ। ZyCov D হল একটি প্লাজমিড ডিএনএ ভ্যাকসিন। যার মানে এটি এমন একটি ভ্যাকসিন যা জেনেটিক্যালিভাবে তৈরি করা। ‘প্লাজমিড’ নামে পরিচিত এক ধরনের ডিএনএ অণুর প্রতিলিপি ব্যবহার করে করা হয়েছে। এটি বিশ্বের প্রথম ডিএনএ ভ্যাকসিন।

এই ভ্যাকসিনটি সরাসরি একজন ব্যক্তির ডিএনএ-তে ‘প্লাজমিড’ হিসেবে প্রবেশ করানো হয় এবং প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে জোরদার করা হয়৷ প্লাজমিডগুলি SARS-CoV-2-এর স্পাইক প্রোটিনের সঙ্গে রাসায়নিক বিক্রিয়া করে। সেই মতো অ্যান্টিবডি তৈরি করে দেহে।এই ভ্যাকসিনটি ডোজ হচ্ছে তিনটি। প্রথমটি নেওয়ার ২৮ দিনের মাথায় দ্বিতীয়টি নিতে হবে। এরপর তৃতীয় ডোজটি নিতে হবে ৫৬ তম দিনে। ZyCoV-D নামক ভ্যাকসিনটি আহমেদাবাদের জাইডাস ভ্যাকসিন টেকনোলজি এক্সেলেন্স সেন্টারে তৈরি করা হচ্ছে। আহমেদাবাদের চাঙ্গোদরের জাইডাস বায়োটেক পার্কের জাইডাস ভ্যাকসিন টেকনোলজি এক্সেলেন্স সেন্টার থেকে নতুন টিকাগুলি পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রের কাছে।

জাতীয় কোভিড ইমিউনাইজেশন প্রোগ্রামের অধীনে ১০ মিলিয়ন ভ্যাকসিন ডোজ সরবরাহের জন্য সংস্থার কাছে অর্ডার দিয়েছিল কেন্দ্র। ট্যাক্স নিয়ে এক একটি ডোজের দাম পড়বে ৩৫৮ টাকা। ডোজের সঙ্গে টিকা দেওয়ার যন্ত্রটিরও দাম ধরা হয়েছে, এমনটাই জানান হয়েছে সংস্থার তরফে। ১২ বছর বা তার বেশি বয়সীদের জরুরী ব্যবহারের জন্য এই টিকা ভারতে অনুমোদিত হয়েছে।আগেই জানা গিয়েছিল ভারতের হাতে একটা করোনার নতুন টিকা আসার কথা। সূত্র মারফত জানা গিয়েছিল দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি প্রথম ডিএনএ টিকা জাইকভ-ডি হাতে পাওয়ার জন্য সবরকমই উদ্যোগ আগে নেওয়া হয়েছিল। আর এই টিকা তৈরি করতে টিকা উৎপাদন সংস্থা জাইডাস ক্যাডিলার সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকার এবিষয়ে আলোচনা করেছিল। এবার অ্যান্টি-কোভিড ভ্যাকসিন জাইকভ-ডি দেশে ইনোকুলেশন ড্রাইভে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় সরকার এই ভ্যাকসিনের ব্যাচ সরবরাহ করতে শুরু করে দিয়েছে।আক্রান্তের সংখ্যা কমলেও উদ্বেগে রাখছে মৃত্যু। ফার্ম সূত্রে কী জানা গেল ফার্মাসিউটিক্যাল ফার্ম সূত্রে জানা গিয়েছে, ফার্ম ইতিমধ্যে জাইকভ-ডিয়ের তিন জোজ ভারত সরকার দিয়েছে। এটি ভ্যাকসিন যাতে বেসরকারিভাবে পাওয়া যায় সেই বিষয়ে পরিকল্পনা করছে। জাইকভ-ডি ভ্যাকসিন ২০২১ সালের আগস্ট মাসে ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া থেকে এটি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন পেয়েছে। এটি বিশ্বের একমাত্র সূচ ছাড়া করোনা ভ্যাকসিন। তাছাড়া এটি প্রথম প্লাজমিড ডিএনএ ভ্যাকসিন। নয়া ভ্যাকসিনের দাম কত এই ভ্যাকসিন নিলে ব্যাথা হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম থাকে। যেটির সাহায্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে তার মূল্য ৯৩ টাকা। আর এই জাইকভ-ডি টিকার প্রতি জোজের মূল্য ৩৫৮ টাকা পড়বে।এটি ভ্যাকসিন আমেদাবাদের তৈরি হয়েছে। উৎপাদন সংস্থা এই টিকার তিন জোজের মূল্য দিয়েছে ১৯০০ টাকা। এখন এই ভ্যাকসিনের প্রতি জোজের দাম ২৬৫ টাকা পড়বে। প্রথম ডোজের ২৮ দিনের মাথায় দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। এই ভ্যাকসিন হাতেই দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। কত বছর বয়সীদের এটি দেওয়া হবে নতুন ভ্যাকসিন জাইকভ ডি ১২ বছর তার বেশি বয়স্কদের দেওয়া হবে। যদিও জানা গিয়েছে প্রথম দিকে এই নতুন ভ্যাকসিন প্রাপ্ত বয়স্কদের দেওয়া হবে। কোন কোন ভ্যাকসিন দেশীয় টিকা হায়দরাবাদে এই নতুন ভ্যাকসিন এখন কিশোর- কিশোরীদের দেওয়া হচ্ছে। কো-ভ্যাকসিন ও জাইকভ-ডি ভ্যাকসিন ভারতের প্রথম দুটি দেশীয় টিকা। যা করোনার বিরুদ্ধে লড়তে সাহায্যও করছে দেশবাসীকে।

কী ভাবে এই টিকা দেওয়া হয়? ত্বকের নিচে দেওয়া হয় এই টিকা। এক্ষেত্রে একটা বিশেষ রকম ডিভাইস ব্যবহার করা হয়। বাতাসের উচ্চচাপে কমপ্রেসড গ্যাসের মাধ্যমে তরল খুব জোরে ত্বকের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে ইঞ্জেকশন দেওয়ার ঝামেলা থাকে না। আমাদের রাজ্যের আগেই এই টিকা হাতে পেলেন নীতীশ কুমার। এরপর যাবে ঝাড়খণ্ড, মহারাষ্ট্রে। তারপর পাবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই টিকা নিয়ে নানা মহলে কৌতূহল ছিল। অবশেষে তা বিহারে পদার্পন করল। এই টিকা করোনা প্রতিরোধে কতটা কার্যকর হয়, এখন সেটাই দেখার। কারণ এর আগেও ভ্যাকসিন এসেছে, তবে করোনা পুরোপুরি বিদায় নেয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.