দ্রুতহারে কোভিড আক্রান্ত রাজ্যের দন্তচিকিৎসকরা!সংক্রমিত ৬০, ডেন্টাল কলেজেই ২৫

Home কলকাতা দ্রুতহারে কোভিড আক্রান্ত রাজ্যের দন্তচিকিৎসকরা!সংক্রমিত ৬০, ডেন্টাল কলেজেই ২৫
দ্রুতহারে কোভিড আক্রান্ত রাজ্যের দন্তচিকিৎসকরা!সংক্রমিত ৬০, ডেন্টাল কলেজেই ২৫

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: কলকাতার আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজে করোনার ভয়াবহ ছবি ধরা পড়েছে। অধ্যক্ষ সহ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৫। করোনা আক্রান্ত হস্টেল সুপার ও তাঁর মেয়েও। ডেন্টাল কলেজের লেডিস হস্টেলেও করোনার থাবা। ১৮ চিকিৎসক ও ১ নার্স করোনা আক্রান্ত। স্বাস্থ্য ভবনকে চিঠি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। রোগী পরিষেবা বন্ধ হওয়ার আশঙ্কা। দিন কয়েক আগে আর আহমেদের জন্মদিন পালিত হয় কলেজে। তারপরই একের পর এক চিকিৎসক, নার্স করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন।

গোটা রাজ্যে সরকারি এবং বেসরকারি মিলিয়ে শুক্রবার পর্যন্ত ৭২ ঘন্টায় মোট ৬০ জন দন্তচিকিৎসক করোয়া আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে কলকাতার আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজেই অন্তত ২৫ জন। এর ফলে চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে খানিকটা হলেও আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। অবস্থা যে দিকে যাচ্ছে, তাতে রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তাকে চিঠি লিখে আর আহমেদে পরিষেবা পুরোপুরি বন্ধ করার কথা বলবেন বলেও ভাবছেন চিকিৎসকদের একাংশ।

বৃহস্পতিবারই আর আহমেদে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন অধ্যক্ষ তপন গিরি-সহ ১১ জন শিক্ষক। বৃহস্পতিবারেই আক্রান্ত হয়েছিলেন লেডিজ হস্টেলের সুপার এবং রাজ্য ডেন্টাল কাউন্সিলের সভাপতি রাজু বিশ্বাসও। শুক্রবার সেখানে আক্রান্ত হলেন আরও আট জন স্বাস্থ্যকর্মী। বর্ধমান-সহ আরও কিছু ডেন্টাল কলেজ এবং বেসরকারি হাসপাতালেও বহু দন্তচিকিৎসক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শুক্রবার পর্যন্ত সংখ্যাটা ৬০ ছুঁয়েছে। চিকিৎসকদের বক্তব্য, আরও অনেকেই আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন। পরীক্ষা করালেও তা ধরা পড়বে।

বাংলায় দ্রুত হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। কয়েক দিনের ব্যবধানে অনেকটাই বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। ওমিক্রন নিয়ে উদ্বেগের আবহে বৃহস্পতিবার রাজ্যে দু’হাজার ছাড়িয়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। কিন্তু অন্যান্য ক্ষেত্রের চিকিৎসকদের চেয়ে দাঁতের চিকিৎসকরা আরও বেশি সংক্রমিত হচ্ছেন।

আক্রান্ত রাজু বিশ্বাসের মতে, একমাত্র দাঁতের রোগীদের ক্ষেত্রে রোগীর মাস্ক খুলে চিকিৎসা করতে হয়। এ ছাড়া উপায় নেই। দন্ত চিকিৎসকেরা মাস্ক পরলেও, রোগীরা মাস্ক খুলেই থাকছেন। ডেন্টাল কলেজে দিনে গড়ে এক থেকে দেড় হাজার রোগী আসেন। এঁদের মধ্যে অনেক উপসর্গহীন করোনায় আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন। ফলে নিজেদের অজান্তেই অনেক চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হয়ে পড়ছেন।

বৃহস্পতিবার আর আহমেদে যাঁরা কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন, তাঁদের সংস্পর্শে আসা স্বাস্থ্যকর্মী ও পড়ুয়াদেরও কোভিড পরীক্ষা করানো হয়েছিল। তাঁদেরই মধ্যে আট জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে শুক্রবার।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, শুধু আর আহমেদেই গত ৪৮ ঘণ্টায় ২৫ জন মতো আক্রান্ত হয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে হাসপাতালের স্বাস্থ্য পরিষেবা ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। তবে ভবিষ্যত পরিস্থিতি যদি গুরুতর হয়ে দাঁড়ায়, তখন রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তাকে সরকারি ভাবে চিঠি দিয়ে আর আহমেদে পরিষেবা বন্ধ রাখার কথা ভাবা হবে। আপাতত পরিষেবা বন্ধ রাখা হচ্ছে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.