কৃষক আন্দোলনের রাজনৈতিক ফসল! পঞ্জাবে আত্মপ্রকাশ ২২ সংগঠনের মিলিত দল ‘সংযুক্ত সমাজ মোর্চা’র

Home দেশের মাটি কৃষক আন্দোলনের রাজনৈতিক ফসল! পঞ্জাবে আত্মপ্রকাশ ২২ সংগঠনের মিলিত দল ‘সংযুক্ত সমাজ মোর্চা’র
কৃষক আন্দোলনের রাজনৈতিক ফসল! পঞ্জাবে আত্মপ্রকাশ ২২ সংগঠনের মিলিত দল ‘সংযুক্ত সমাজ মোর্চা’র

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: এক বছর ধরে চলা কৃষক আন্দোলনের পুরোটাই ছিল অরাজনৈতিক। মোদি সরকারের বিরুদ্ধে চলা সেই আন্দোলনে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির নৈতিক সমর্থন ছিল মাত্র, কিন্তু তাঁদের আন্দোলনকে হাইজ্যাক করার সুযোগটুকুও কাউকে দেননি কৃষক নেতৃত্ব। তাঁদের কাছে এটি ছিল স্রেফ অধিকার রক্ষার লড়াই। সেই লড়াইয়ে সাফল্য এসেছে। কেন্দ্র তিনটি বিতর্কিত কৃষি আইন প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয়েছে। এবার আন্দোলনকারী কৃষকরা নামছেন সক্রিয় রাজনীতিতে। তাঁদের মনে হয়েছে, প্রতিষ্ঠান বিরোধিতা সহজতর হয়,নিকর্বাচনী ময়দানে পা রাখার পরই। সেই ভাবনা থেকেই পঞ্জাবের ২২টি কৃষক সংগঠন এক ছাতার তলায় এসে তৈরি করে ফেলল নতুন রাজনৈতিক দল ‘সংযুক্ত সমাজ মোর্চা’। কৃষক আন্দোলনের অভিমুখ এবার ঘুরে গেল সক্রিয় রাজনীতির দিকেই।

কৃষক সংগঠনের নেতাদের দাবি, ‘সংযুক্ত কিষান মোর্চা’ যেমন অনেকগুলি আলাদা আলাদা মতাদর্শের সংগঠনের ঐক্যমঞ্চ ছিল, তেমন ‘সংযুক্ত সমাজ মোর্চা’ও একটা ঐক্যমঞ্চ। এটা কোনও রাজনৈতিক দল নয়, বরং এটা একটা মোর্চা, একটা আন্দোলনের নাম। যেখানে বিভিন্ন মতাদর্শের মানুষ একত্রিত হবে। কৃষক নেতা হরমীত সিং কাদিয়ানের কথায়, ‘আমরা সংযুক্ত কিষান মোর্চার ব্যানারে আন্দোলন করে জয়ী হলাম। কিন্তু তারপর ঘরে ফিরে দেখলাম আমাদের চাপ দেওয়া হচ্ছে। এই যুদ্ধে জিততে হলে, আমাদের নির্বাচনেও জিততে হবে।’

এখনও পর্যন্ত যা খবর, তাতে ‘সংযুক্ত সমাজ মোর্চা’র নেতৃত্বে থাকবেন ভারতীয় কিষান ইউনিয়নের নেতা বলবীর সিং রাজেওয়াল। তাঁর বক্তব্য, জনগণের দাবি মেনেই এই রাজনৈতিক দল তৈরি করা। সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের মানুষ এই দলে যোগ দিয়েছেন। আপাতত তাঁর লক্ষ্য, দলের সংগঠন মজবুত করা এবং সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছানো। রাজনৈতিক মহলে জল্পনা ছিল অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টির সঙ্গে জোট করে লড়তে পারে এসএসএম। কিন্তু নবগঠিত সংযুক্ত সমাজ মোর্চার দাবি, তাঁরা পঞ্চাবের ১১৭টি আসনেই লড়বেন।

কৃষকদের এই পদক্ষেপ সে রাজ্যে কংগ্রেসের জন্য বড়সড় ধাক্কা হতে পারে বলে ধারণা।কারণ, এই কৃষক আন্দোলনের ফসল তুলেই পঞ্জাবে ক্ষমতায় ফেরার স্বপ্ন দেখছে কংগ্রেস। অথচ, কৃষকদের এই নতুন দল এবার লড়বে পঞ্জাবের কংগ্রেস সরকারের বিরুদ্ধেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.