৮ ফেব্রুয়ারি অখিলেশের হয়ে প্রচারে মমতা, প্রথম সভা লখনউ, পরের সভা মোদির বারাণসীতে

Home কলকাতা ৮ ফেব্রুয়ারি অখিলেশের হয়ে প্রচারে মমতা, প্রথম সভা লখনউ, পরের সভা মোদির বারাণসীতে
৮ ফেব্রুয়ারি অখিলেশের হয়ে প্রচারে মমতা, প্রথম সভা লখনউ, পরের সভা মোদির বারাণসীতে

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: সমাজবাদী পার্টির হয়ে ভোটপ্রচারে লখনউ যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার কালীঘাটে তৃণমূলনেত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর জানালেন সমাজবাদী পার্টির বর্ষীয়ান নেতা কিরণময় নন্দ। মঙ্গলবার বিকেলে কালীঘাটের বাড়িতে তৃণমূলনেত্রীর সঙ্গে দেখা করেন রাজ্যের প্রাক্তন মৎস্যমন্ত্রী। এর পরই সংবাদমাধ্যমের কাছে জানান, বিজেপির বিরুদ্ধে দেশে অন্যতম বিরোধী মুখ হলেন মমতাই। ২ দফায় উত্তরপ্রদেশে প্রচার করবেন তৃণমূলনেত্রী। উত্তরপ্রদেশ ভোটের আগে ৮ ফেব্রুয়ারি প্রথম লখনউ যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর যাবেন প্রধানমন্ত্রীর সংসদীয় আসন বারাণসীতেও।

করোনাকালে নির্বাচন কমিশনের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে ভোটের র‍্যালিতে। তাই সেখানে ভার্চুয়াল বৈঠক করবেন মমতা-অখিলেশ। কালীঘাটে তৃণমূলনেত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর জানালেন অখিলেশের দূত। লখনউয়ে অখিলেশের সঙ্গে ভার্চুয়ালি প্রচার করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এমনটাই জানান হয়েছে এদিন। এর আগে বিধানসভা নির্বাচনে মমতাকে পূর্ণ সমর্থন করেছিলেন মুলায়ম পুত্র। সমাজবাদী পার্টির জয়া বচ্চনও আসেন তৃণমূলের প্রচারে।

উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে বিজেপি বিরোধী শক্তিকে আরও জোরদার করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাশে চাইছেন অখিলেশ। অখিলেশের তরফে থেকে আগেই উত্তরপ্রদেশে আমন্ত্রণ জানানো হয় বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে। যৌথ সাংবাদিক বৈঠকের জন্যও তাঁর কাছে প্রস্তাব আসে। সেই প্রস্তাবে সায় দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যোগীরাজ্যে পাড়ি দেওয়ার বিষয়ে সায় দিলেন।

উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে সমাজবাদী পার্টিকে সমর্থনের প্রস্তাব নিয়েই মমতার কালীঘাটের বাড়িতে আসেন কিরণময়। নির্বাচনে অংশ নেওয়া শুধুই কি অখিলেশ যাদবকে সমর্থন নাকি সপা শরিক হয়ে ভিনরাজ্যের নির্বাচনী ময়দানে নামবে তৃণমূল? উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর দল তৃণমূল কংগ্রেসের অবস্থানের দিকে তাকিয়ে ছিল গোটা দেশ। তবে এদিন বৈঠকের পর কিরণময় নন্দ স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন উত্তরপ্রদেশে তৃণমূল নির্বাচনে অংশ নেবে না। তিনি শুধুই সমাজবাদী পার্টিকে সমর্থন জানাবেন। পাশাপাশি তিনি জানান, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি মমতা ও অখিলেশের যৌথ সাংবাদিক সম্মেলন এবং ভার্চুয়াল বৈঠক হবে লখনউয়ে। মমতা-অখিলেশের পরের সভাটি হবে নমোর কেন্দ্র বেনারসে।

এদিকে, মমতা-কিরণময়ের এই বৈঠক নিয়ে কটাক্ষ করেছেন দিলীপ ঘোষ। এদিন দিলীপ বলেন, ‘সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে আগেও বৈঠক করেছেন মমতা। তখনও লাভ হয়নি। এ বারও লাভ হবে না।’

উল্লেখ্য অখিলেশ যাদবের সঙ্গে আগেই জোট ঘোষণা করেছেন এনসিপি প্রধান পাওযার।ইতিমধ্যেই মিডিয়ার সামনে পাওয়ারের ঘোষণা, ‘পরিবর্তন আসছে। আগামীদিনে বিজেপির মুখোশ খুলবে। উত্তরপ্রদেশের মানুষও পরিবর্তন আনবে।

এদিকে, উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে তিন মন্ত্রী ও একঝাঁক বিধায়কের দলত্যাগে বেশ কিছুটা চাপে যোগী শিবির। দলিত সম্প্রদায়ের নেতা এসপি মৌর্য দল ছাড়ায় যোগী শিবিরে কার্যত ধস নামে। দলত্যাগীরা স্বামী প্রসাদ মৌর্যের মাপের নেতা দলে যোগ দেওয়ায় সপার পাল্লা ভারী হয়েছে। কারণ, তাঁর বিজেপি ছাড়ার তিন দিনের মধ্যে আট জন নেতা যোগী শিবির ছেড়েছেন।প্রায় সকলেই অখিলেশের শরণ নেওয়ায় এই মুহূর্তে সপা যে ভালো জায়গায় রয়েছে তা বলাই বাহুল্য।

উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে এবার মূলত চতুর্মুখী লড়াই, বিজেপি ও সপার পাশাপাশি লড়াইয়ে রয়েছে বিএসপি ও কংগ্রেস। সঙ্গে রয়েছে বেশ কয়েকটি আঞ্চলিক দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.