‘বিশ্বের সেরা স্পিনার নন ওয়ার্ন (Shane Warne)’, নিজের বিতর্কিত মন্তব্যের সাফাই দিলেন সুনীল গাভাসকর (Sunil Gavaskar)

Home খেলাধুলো ‘বিশ্বের সেরা স্পিনার নন ওয়ার্ন (Shane Warne)’, নিজের বিতর্কিত মন্তব্যের সাফাই দিলেন সুনীল গাভাসকর (Sunil Gavaskar)
‘বিশ্বের সেরা স্পিনার নন ওয়ার্ন (Shane Warne)’, নিজের বিতর্কিত মন্তব্যের সাফাই দিলেন সুনীল গাভাসকর (Sunil Gavaskar)

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: গত ৪ মার্চ ক্রিকেটবিশ্বকে স্তব্ধ করে প্রয়াত হয়েছেন কিংবদন্তি অষ্ট্রেলীয় (Australian) স্পিনার (leg spinner) শেন ওয়ার্ন (Shane Warne)। তাঁর বিষাক্ত স্পিনের ছোবল বারেবারে ব্যাটারদের ইনিংস শেষ করে দিলেও মাত্র ৫২ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শেষ হয়ে গিয়েছে তাঁর জীবনের ইনিংস (cause of death)।ওয়ার্নের (Shane Warne) মৃত্যু ঘিরে শোকের আবহের মধ্যেই তাঁকে ঘিরে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটার সুনীল গাভাসকর (Sunil Gavaskar)। তিনি বলেন, শেন ওয়ার্ন (Shane Warne) বিশ্বের সেরা স্পিনার নন। অষ্ট্রেলীয় কিংবদন্তির থেকে অনেক এগিয়ে শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন স্পিনার মুথাইয়া মুরলীধরন। এবার সেই বিতর্কিত মন্তব্যের সাফাই দিলেন সুনীল গাভাসকর।

শেন ওয়ার্নের (Shane Warne) প্রয়াণের পর একটি সর্বভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে গাভাসকরকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তিনি শেন ওয়ার্নকেই (Shane Warne) সর্বকালের সেরা স্পিনার বলে মানেন কি না। এর উত্তরে নিজস্ব মতামত দেন ভারতের প্রাক্তন কিংবদন্তি ব্যাটার। তিনি স্পষ্টতই জানিয়ে দেন, ওয়ার্নকে (Shane Warne) সেরা স্পিনার বলে মানেন না তিনি। তাঁর মতে, অষ্ট্রেলীয় কিংবদন্তির থেকে অনেক এগিয়ে ভারতীয় স্পিনাররা এবং শ্রীলঙ্কার স্পিনার মুথাইয়া মুরলীধরন। এই প্রসঙ্গে স্পিনারদের পরিসংখ্যানের কথাও উল্লেখ করেন তিনি। ভারতীয় স্পিনারদের পারফর্ম্যান্স যে ওয়ার্নের থেকে উপরে, সে কথাও বলেন সুনীল গাভাসকর। ‘ভারতের বিরুদ্ধে শেন ওয়ার্নের রেকর্ডের দিকে তাকান। অত্যন্ত সাধারণ মানের। ভারতের মাটিতে নাগপুরে মাত্র একবারই পাঁচ উইকেট পেয়েছিলেন তিনি। তাও আবার জাহির খানের জন্য। যেসব ভারতীয় ব্যাটাররা ভালো স্পিন খেলতে পারতেন, তাঁদের কাছে খুব একটা কঠিন বাধা ছিলেন না শেন ওয়ার্ন। সেজন্যই আমি তাঁকে সর্বকালের সেরা স্পিনার বলতে পারবো না’, ওই অনুষ্ঠানে সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন তিনি। তাঁর পছন্দের তালিকায় ওয়ার্নের উপরেই যে মুথাইয়া মুরলীধরন থাকবেন, তাও জানিয়ে দেন তিনি। এর কারণ হিসাবে তিনি বলেন, স্পিনার হিসাবে ভারতের বিরুদ্ধে ওয়ার্নের থেকে ভালো রেকর্ড রয়েছে মুরলীর। তাই তাঁকেই এগিয়ে রাখবেন গাভাসকর।

আরও জানতে পড়ুন – যতদিন বল ঘুরবে, ওয়ার্ন (‌Shane Warne) বেঁচে থাকবেন ততদিন

গাভাসকরের এই বক্তব্যের পরই তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে যাবতীয় জলঘোলা তৈরি হয়। প্রবল বিতর্ক সৃষ্টি হয় গাভাসকরের এই বক্তব্যকে ঘিরে। এরপরই নিজের মন্তব্য নিয়ে সাফাই গান প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটার। আক্ষেপের সুরেই তাঁকে বলতে শোনা যায়, শেন ওয়ার্নের মৃত্যুর পর এমন স্পর্শকাতর সময়ে তাঁকে এই ধরনের প্রশ্ন করা উচিত হয়নি সঞ্চালকের। নিজের ভুলও স্বীকার করেন তিনি। গাভাসকর জানান, সদ্য প্রয়াত শেন ওয়ার্নের সঙ্গে অন্য কারুর তুলনা করে ঠিক করেননি তিনি। বিতর্কের পর ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও পোস্ট করেন গাভাসকর। সেখানে তিনি বলেন, ‘এমন পরিস্থিতিতে এই প্রশ্নটা যেমন করা উচিত ছিল না, তেমনই আমারও উত্তর দেওয়া ঠিক হয়নি।’ এখানেই থামেননি তিনি। ভিডিওতে এরপর ওয়ার্নের ভূয়সী প্রশংসী করেন গাভাসকর। তিনি বলেন, ‘ক্রিকেটজগতে ওয়ার্ন অন্যতম সেরা তারকা। রডনি মার্শও বিশ্বের অন্যতম সেরা উইকেটরক্ষক। তাঁদের আত্মার শান্তি কামনা করি।’

প্রসঙ্গত, অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ১৪৫টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন ওয়ার্ন। নিয়েছেন ৭০৮টি উইকেট। টেস্টে তাঁর বোলিং গড় ২৫.‌৪। ৫ উইকেট নিয়েছেন ৩৭বার। সেরা বোলিং ৭১ রানে ৮ উইকেট। ওয়ান ডে ক্রিকেটে খেলেছেন ১৯৪টি ম্যাচ। নিয়েছেন ২৯৩টি উইকেট। বোলিং গড় ২৫.‌৭। সেরা বোলিং ৩৩ রানে ৫ উইকেট।

নিজের প্রয়াণের কিছুক্ষণ আগেই অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট কিংবদন্তি রডনি মার্শের প্রয়াণে টুইটারে ওয়ার্ন লিখেছিলেন, ‘মার্শ শৈশবে আমাদের মতো উঠতি ক্রিকেটারদের অনুপ্রেরণা ছিলেন। ক্রিকেটকে উনি অনেক কিছু দিয়েছেন। মার্শের পরিবারকে সমবেদনা জানাই।’ তার ১২ ঘণ্টার মধ্যেই প্রয়াত হলেন শেন ওয়ার্ন।

ওয়ার্নের আকস্মিক মৃত্যুতে ট্যুইটারে শোকজ্ঞাপন করেছেন দেশবিদেশের বর্তমান ও প্রাক্তন তারকারা। প্রাক্ত ভারতীয় ওপেনার কৃষ্ণমাচারি শ্রীকান্ত লিখেছেন ‘ওয়ার্নের প্রয়াণের খবরটা পেয়ে আমি শোকস্তব্ধ। ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বকালের সেরা রিস্টস্পিনারদের মধ্যে ও একজন ছিল। ওয়ার্নের পরিবারকে সমবেদনা জানাই।’ আরেক প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষ্মণের কথায়, ‘অবিশ্বাস্য খবর। এতটাই অবাক হয়েছি যে ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। ভারতীয় কিংবদন্তি বীরেন্দ্র শেওয়াগও ট্যুইট করেছেন, ‘স্পিন বোলিংকে যিনি আকর্ষণীয় বানালেন, সেই শেন ওয়ার্ন আর নেই‌!‌ জীবন খুবই ভঙ্গুর।’

নিয়মিত ধূমপানের কুঅভ্যাস ছিল ওয়ার্নের। ভক্তদের দাবি, সেই অভ্যাসই নাকি ওয়ার্নের হৃদরোগের কারণ হয়ে দাঁড়াল। ধূমপানের অভ্যাস ছাড়াও একাধিকবার নানা বিতর্কে জড়িয়েছেন এই অজি তারকা। কখনও স্লেজিং, কখনও ক্রিকেট জুয়াড়ির সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা, কখনও নিষিদ্ধ ড্রাগ সেবন কখনও আবার একের পর এক নিষিদ্ধ মাদক সেবনের অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। জড়িয়েছেন অগণিত যৌন কেলেঙ্কারিতেও। পাশাপাশি স্টিভ ওয়াথেকে রিকি পন্টিংদের সঙ্গেও বিবাদে জড়িয়েছেন। তবু শেন কেইথ ওয়ার্ন নামটা শুনলে ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাইক গ্যাটিংকে করা সেই ‘বল অফ দ্য সেঞ্চুরি’–র কথাই মাথায় আসবে। অস্ট্রেলীয় এই কিংবদন্তির আকস্মিক মৃত্যুতে এখনও শোকস্তব্ধ ক্রিকেট মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.