জয় শ্রী রামের পাল্টা আল্লা হু আকবর, উত্তপ্ত কর্নাটকে সুর চড়ালেন মুসলিম ছাত্রী

Home দেশের মাটি জয় শ্রী রামের পাল্টা আল্লা হু আকবর, উত্তপ্ত কর্নাটকে সুর চড়ালেন মুসলিম ছাত্রী
জয় শ্রী রামের পাল্টা আল্লা হু আকবর, উত্তপ্ত কর্নাটকে সুর চড়ালেন মুসলিম ছাত্রী

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: হিজাব বিতর্ক চরমে উঠেছে কর্নাটকে। গত তিন দিন ধরে কলেজে কলেজে চলছে বিক্ষোভ। মঙ্গলবার কর্নাটকের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে গেরুয়া পতাকা হাতে নিয়ে একদল ছেলে হিজাব পরা এক তরুণীকে ধাওয়া করছে আর জয়শ্রীরাম স্লোগান দিচ্ছে। তরুণী বিন্দু মাত্র ভীত না হয়ে রুখে দাঁড়িয়ে পাল্টা আল্লা-হু-আকবর বলে পাল্টা আক্রমণ করছেন।কর্নাটকে হিজাব পরে কলেজে যাওয়া নিয়ে চরম উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। কলেজে ইউনিফর্ম পরে যাওয়ার নতুন আইনে হিজাব পরা যাবে না বলে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। গেরুয়া শাল বা হিজাব কোনও কিছু নিয়েই যাওয়া যাবে না বলে কর্নাটক সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয়েছে। তারপরেই উত্তেজনা চরমে উঠেছে। এই নির্দেশিকা জারির পরেই রাজ্যের একাধিক কলেজে হিজাব পরে আসা ছাত্রীদের পড়ানো হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে।তাঁদের বাড়ি চলে যেতে বলা হচ্ছে। কলেজে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।গত কয়েক দিন ধরেই কর্নাটকের বিভিন্ন কলেজে এই নিয়ে বিক্ষোভ চলছে। কলেজে কলেজে হিজাব পরে ছাত্রীরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। পাল্টা গেরুয়া শাল গায়ে দিয়েও চলছে বিক্ষোভ। মঙ্গলবার এই ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। মঙ্গলবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও তাতে দেখা যাচ্ছে হিজাব পরা এক তরুণিকে ধাওয়া করছেন গেরুয়া পতাকা নেওয়া একদল ছেলে। তাঁরা জয়শ্রীরাম স্লোগান তুলেছেন। পাল্টা তরুণী রুখে দাঁড়িয়ে আল্লা হু আকবর স্লোগান তুলেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে ভিডিওটি।

হিজাব পরায় আপত্তি নিয়ে প্রথম থেকে সরকারের বিরোধিতা করেছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া। তিনি বলেছেন, রাজ্যের যে পরিস্থিতি তাতে অবিলম্বে কিছুদিন স্কুল কলেজ ছুটি দিয়ে দেওয়া উচিত। এবং অনলাইনে ক্লাস শুরু করে দেওয়া উচিত। অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছে রাজ্যের পরিস্থিতি। কংগ্রেস নেতা ডিকে শিবকুমার জানিয়েছেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা গিয়েছে একটি জায়গায় জাতীয় পতাকা সরিয়ে গেরুয়া পতাকা তোলা দেওয়া হয়েছে।কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য নিজের সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছেন। তিনি বলেছেন সংবিধানে রয়েছে স্কুল কলেজে ইউনিফর্মের কথা। সেটা কোনও ভাবেই আইন বিরুদ্ধ হতে পারে না। কাজেই এই নির্দেশিকার বদল হবে না বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিকে কর্নাটক হাইকোর্টও জানিয়েছে আবেগ তাড়িত না হয়ে যেন সত্যির মুখোমুখি হয়ে কাজ করেন সকলে। আবেগকে দূরে সরিয়ে রেখে কাজ করার বার্তা দিয়েছে হাইকোর্ট।গত বছরের ডিসেম্বর মাস থেকে বিজেপি শাসিত কর্নাটকের কলেজে মুসলিম ছাত্রীদের হিজাবে পরা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। গত কয়েক দিনে তা চরমে পৌঁছেছে। হাই কোর্টে উঠেছে মামলা। এদিন সকালেও উডুপির মহাত্মা গান্ধী কলেজে মুখোমুখি হয় উভয়পক্ষ- হিজাব পরিহিত ছাত্রীরা ও গেরুয়া উত্তরীয় জড়ানো হিন্দুত্ববাদী পড়ুয়াদের দল। এরই মধ্যেই প্রকাশ্যে এসেছে একা একটি মুসলিম মেয়ের পালটা সুর চড়ানোর ভিডিও।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, বোরখা পরা এক ছাত্রী একটি স্কুটিতে কলেজ চত্বরে প্রবেশ করছেন। যেখানে আগে থেকেই উপস্থিত ছিল গেরুয়া উত্তরীয় পরা একদল ছাত্র। ছাত্রীটি গাড়ি পার্ক করে ক্লাসের দিকে এগোতেই তাঁকে অনুসরণ করে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিতে থাকেন তাঁরা। মেয়েটির খুব কাছে এসে ক্রমাগত স্লোগান দিতে থাকে হিন্দুত্ববাদী ছাত্রদের দলটি। একটা সময় ঘুরে দাঁড়ান ওই ছাত্রী। চোয়াল শক্ত করে পালটা স্লোগান দিতে শুরু করেন তিনি। একাধিকবার হাত তুলে ‘আল্লাহু আকবর’ বলে চিৎকার করতে দেখা যায় তাঁকে। ভিডিওর শেষে ক্যামেরার সামনে এসেও স্থানীয় ভাষায় চিৎকার করে প্রতিবাদ জানান মেয়েটি। এর মধ্যে কলেজ কর্তৃপক্ষও এসে পড়ে ঘটনাস্থলে। তারা হিন্দুত্ববাদী ছাত্রদের থেকে সরিয়ে কলেজের ভেতরে নিয়ে যায় ছাত্রীকে।পরে একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে ওই কলেজ পড়ুয়া জানান, ‘আমি কলেজে আসছিলাম। একদল ছাত্র আমাকে কলেজে ঢুকতে দিচ্ছিল না। ওরা বলে, বোরখা পরা থাকলে কলেজে ঢুকতে দেবে না’।

এদিকে বোরখা পরা ওই কলেজ ছাত্রীর ভাইরাল ভিডিও নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে শেয়ার করে বিতর্ক বাড়িয়েছেন বলি অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর। তিনি ছাত্রদের দলটিকে ‘নেকড়ে’ বলে উল্লেখ করেন নিজের পোস্টে। উল্লেখ্য, হিজাব পরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়া যায় কিনা, সেটা আদালতের বিচারাধীন বিষয়। তবে, যে সাহসিকতার সঙ্গে একদল উন্মত্ত পড়ুয়ার সামনে প্রতিবাদ করল শীর্ণকায় মেয়েটি, তা প্রশংসিত হচ্ছে নেটদুনিয়ায়।এদিকে আজই কর্ণাটকের কলেজের আরও একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। যেখানে দেখা গিয়েছে, একদল হিন্দুত্ববাদী ছাত্র কলেজ চত্বরে একটি গেরুয়া পতাকা টাঙানোর চেষ্টা করছেন। অভিযোগ, ওই ছাত্ররা জাতীয় পতাকা নামিয়ে গেরুয়া পতাকা টাঙায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.