আইএসএল-এ (ISL) কোন দল কত বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে? জানুন সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

Home খেলাধুলো আইএসএল-এ (ISL) কোন দল কত বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে? জানুন সংক্ষিপ্ত ইতিহাস
আইএসএল-এ (ISL) কোন দল কত বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে? জানুন সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

বঙ্গভূমি লাইভ ডেস্ক: ২০২২ আইএসএল-এ (ISL) কেরালাকে টাইব্রেকারে হারিয়ে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হলো হায়দরাবাদ এফসি। কিন্তু জানেন কি এখনও পর্যন্ত কোন দল কতবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আইএসএল-এ? কোন দলেরই বা রয়েছে আইএসএল-এ সর্বোচ্চ গোলের সংখ্যা?

সংক্ষিপ্ত ইতিহাস :

আজ থেকে প্রায় আট বছর আগে ২০১৩ সালে ২১ অক্টোবর আইএমজি রিলায়েন্স এবং স্টার স্পোর্টসের হাত ধরে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের অনুমোদনে যাত্রা শুরু হয় ইন্ডিয়ান সুপার লিগ (ISL) বা আইএসএল-এর। এখন আইএসএল-এর প্রধান বিনিয়োগকারী সংস্থা হলো হিরো কোম্পানি।

এবার দেখে নেব প্রত্যেক মরসুমে কোন দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

২০১৪ মরশুম-


আইপিএলের অনুকরণে ভারতীয় ফুটবলকে গোটা দেশের মানুষের সঙ্গে পরিচিত করাতে শুরু হয় ইন্ডিয়ান সুপার লিগ (ISL)। অচিরেই গোটা দেশে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে প্রতিযোগিতাটি। প্রথম আইএসএল-এই বাজিমাৎ কলকাতার। গোটা টুর্নামেন্টে বুদ্ধিদীপ্ত ডিফেন্সিভ ফুটবল খেলে ফাইনালে পৌঁছয় আন্তোনিও লোপেজ হাবাসের অ্যাতলেটিকো দি কলকাতা (Atletico de Kolkata) ওরফে এটিকে। দুর্দান্ত ফুটবল খেলেন ফিকরু, অর্ণব মণ্ডল-রা। ফাইনালে কেরালার বিরুদ্ধে ম্যাচে ব্যাকফুটে থেকেও সুপার সাব মহম্মদ রফিকের গোলে জয় পায় অ্যাতলেটিকো দি কলকাতা। ম্যাচের ফলাফল হয় ১-০। উঠতি খেলোয়াড়ের খেতাব পান ডিফেন্ডার সন্দেশ ঝিঙ্গান।

২০১৫ মরসুম-

গোটা দেশ অপেক্ষা করছিল আইএসএল-এর (ISL) দ্বিতীয় বর্ষের। সুন্দর ফুটবল দেখার আশায় বসেছিল গোটা ভারতবাসী। হতাশ করেনি আইএসএল। মালুদা, পোস্তিগা, লিও মোরার মতো বিদেশিদের পাশাপাশি রোমিও ফার্নান্দেজ, সন্দেশ ঝিঙ্গান-রাও দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেন। এলানো, মেন্দোজা-দের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ভর করে নক আউটে পৌঁছয় চেন্নাইয়িন এফ সি (Chennaiyin FC)। সেমিফাইনালে কলকাতাকে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে হারায় তারা। ফাইনালে এফ সি গোয়াকে (FC Goa) হারিয়ে জয় তুলে নেয় চেন্নাইয়িন। ম্যাচের ফলাফল ৩-২।
 

২০১৬ মরশুম-

তৃতীয় বারও দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দেয় আইএসএল (ISL)। নতুন কোচ, কিছু নতুন ভারতীয় খেলোয়াড় নিয়ে দুর্দান্ত ফুটবল খেলে নক আউটে পৌঁছয় অ্যাতলেটিকো দি কলকাতা। সেমিফাইনালে দিয়াগো ফোরল্যানের মুম্বই সিটি এফ সি-কে (Mumbai City FC) হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছয় হোসে মোলিনার কলকাতা। ফাইনালে তারা মুখোমুখি হয় প্রথমবারের ফাইনালিস্ট কেরালার। পেনাল্টি শ্যুট আউটে জয় তুলে নেয় কলকাতা।

২০১৭-১৮ মরশুম-

এই আইএসএল-এ অন্তর্ভূক্তি ঘটে আরও দুটি দলের। দু’বারের আইলিগ জয়ী বেঙ্গালুরু এফ সি (Bengaluru FC) এবং একাধিক বাঙালি ফুটবলার নিয়ে তৈরি জামশেদপুর এফ সি এই বারই প্রথম আইএসএল-এর মঞ্চে অবতীর্ণ হয়। দুর্দান্ত ফুটবল খেলে গ্রূপে প্রথম হয়ে আইএসএল ফাইনালে পৌঁছয় বেঙ্গালুরু। কিন্তু ফাইনালে তাদের হারতে হয় চেন্নাইয়িনের কাছে। সুনীল ছেত্রীর (Sunil Chhetri) গোলে পিছিয়ে পড়েও আলভেসের জোড়া গোলে জয় তুলে নেয় চেন্নাইয়িন। ম্যাচের ফলাফল ৩-২।

২০১৮-১৯ মরশুম-

গত বছর ট্রফি জিততে না পারার হতাশা ঝেড়ে ফেলে ফের নতুন উদ্যমে ঝাঁপিয়ে পড়ে বেঙ্গালুরু। ফের তারা গ্রূপে শীর্ষস্থান নিশ্চিত করে। সেমিফাইনালে নর্থ ইস্ট ইউনাইটেডের (North East United) কাছে প্রথম লেগে হারলেও দ্বিতীয় লেগে জয় পেয়ে এগ্রিগেট স্কোরে ফাইনালে পৌঁছয় তারা। ফাইনালে তাদের মুখোমুখি হয় দুর্দান্ত ফর্মে থাকা এফ সি গোয়া। গোলশূন্য থাকে ৯০ মিনিট। অতিরিক্ত সময়ের ১১৭ মিনিটে রাহুল ভেকের গোলে নিজেদের প্রথম আইএসএল ঘরে তোলে বেঙ্গালুরু এফসি। ম্যাচের ফলাফল ১-০।
 
২০১৯-২০ মরশুম-

হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর গোয়া, এটিকে, বেঙ্গালুরু ও চেন্নাইয়িন প্লে-অফে পৌঁছয়। সেমিফাইনালে দুই লেগ মিলিয়ে ৬-৫ এগ্রিগেটে গোয়াকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে চেন্নাইয়িন। অপরদিকে চার বছর পরে ফাইনালে পৌঁছয় এটিকে। বেঙ্গালুরুকে সেমিতে তারা হারায় ৩-২ এগ্রিগেটে। ফাইনালে জাভিয়ার হার্নান্দেজের জোড়া গোল এবং এডু গার্সিয়ার গোলে চেন্নাইয়িনকে ৩-১ গোলে হারিয়ে নিজেদের তৃতীয় ট্রফি তুলে নেয় এটিকে।
                

২০২০-২১ মরশুম-

২০২০-২১ মরশুমে এটিকের সঙ্গে যুক্ত হয়ে প্রথমবার আইএসএল (ISL) খেলে মোহনবাগান। আর প্রথমবারেই ফাইনালে ওঠে এটিকে মোহনবাগান। কিন্তু ফাইনালে উঠে স্বপ্নভঙ্গ হয় এটিকে মোহনবাগানের (ATK Mohun Bagan) । ফাইনালে এগিয়ে গিয়েও হারের মুখ দেখতে হয় তৎকালীন কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাসের দলকে। ম্যাচের ১৮ মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন ডেভিড উইলিয়ামস। কিন্তু ২৯ মিনিটে আত্মঘাতী গোল করে বসে এটিকে মোহনবাগান। ম্যাচের ৯০ মিনিটে বিপিন সিংয়ের গোলে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয় মুম্বই সিটি এফ সি। ম্যাচের ফলাফল ২-১।

২০২১-২২ মরশুম –

এই মরশুমে খুব একটা ভালো খেলেনি গতবারের ফাইনালিস্ট এটিকে মোহনবাগান। সেমিফাইনালে উঠলেও হায়দরাবাদ এফ সি-র বিরুদ্ধে হেরে প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে যায় এটিকে মোহনবাগান। ফাইনালে কেরালা ব্লাস্টার্সকে টাইব্রেকারে হারিয়ে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয় হায়দরাবাদ এফ সি।৬৮ মিনিটে রাহুলের গোলে এগিয়ে যায় কেরালা। কিন্তু হায়দরাবাদের হয়ে ৮৮ মিনিটে গোল শোধ করেন সাহিল।অতিরিক্ত সময়ে ফলাফল থাকে ১-১। খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে, পেনাল্টি শ্যুটে ৩-১ গোলে জিতে চ্যাম্পিয়ন হয় হায়দরাবাদ এফ সি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.